ঢাকা ১১:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৬:১৭:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২০ বার পঠিত

সংগ্রহীত ছবি

সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ

মিয়ানমারের সঙ্গে এক হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সেই সঙ্গে পুরো সীমান্তে স্থাপন করা হবে উচ্চমাত্রার নজরদারি ব্যবস্থাও। একই সঙ্গে সীমান্তে টহল দেয়ার জন্য সড়কও তৈরি করা হবে। সংঘাতময় মিয়ানমারের বিষয়ে এমনসব জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে শেয়ার করা এক টুইটে অমিত শাহ জানিয়েছেন, ভারত-মিয়ানমারের এক হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের পুরোটা অংশজুড়েই কাঁটাতাড়ের বেড়া নির্মাণ করা হবে।

অমিত শাহ আরও বলেন, ‘মোদি সরকার দুর্ভেদ্য সীমান্ত নির্মাণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সরকার পুরো ১ হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার ভারত-মিয়ানমার সীমান্তে বেড়া নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরও ভালো নজরদারির সুবিধার্থে সীমান্তে একটি টহল ট্র্যাক তৈরি করা হবে।’

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টুইটে আরও বলেছেন, ‘মোট সীমান্তের মধ্যে মণিপুরে ১০ কিলোমিটার সীমান্তে ইতোমধ্যেই বেড়া দেয়া হয়েছে। হাইডেফিনেসন্স সার্ভিল্যান্স সিস্টেম (এইচএসএস) ব্যবহার করে বেড়া তৈরির দুটি পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন।’

এর আগে, গত ২০ জানুয়ারি অমিত শাহ বলেন, ‘মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের সীমান্ত উন্মুক্ত। নরেন্দ্র মোদির সরকার ভারত-মিয়ানমার সীমান্ত সুরক্ষিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সীমান্তের মতো মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পূর্ণ সীমানায় আমরা বেড়া নির্মাণ করব।’

মিয়ানমারের সঙ্গে ফ্রি মুভমেন্ট রেজিম চুক্তি বন্ধ করা নিয়েও ভারত সরকার আলোচনা করছে বলে তিনি জানান। অমিত শাহ বলেন, নয়াদিল্লি এখন দুই দেশের মধ্যে সেই অবাধ চলাচলের বিধান বন্ধ করবে।

এসবিএন

ট্যাগস :

সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

প্রকাশের সময় : ০৬:১৭:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ

মিয়ানমারের সঙ্গে এক হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সেই সঙ্গে পুরো সীমান্তে স্থাপন করা হবে উচ্চমাত্রার নজরদারি ব্যবস্থাও। একই সঙ্গে সীমান্তে টহল দেয়ার জন্য সড়কও তৈরি করা হবে। সংঘাতময় মিয়ানমারের বিষয়ে এমনসব জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গতকাল মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে শেয়ার করা এক টুইটে অমিত শাহ জানিয়েছেন, ভারত-মিয়ানমারের এক হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের পুরোটা অংশজুড়েই কাঁটাতাড়ের বেড়া নির্মাণ করা হবে।

অমিত শাহ আরও বলেন, ‘মোদি সরকার দুর্ভেদ্য সীমান্ত নির্মাণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সরকার পুরো ১ হাজার ৬৪৩ কিলোমিটার ভারত-মিয়ানমার সীমান্তে বেড়া নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আরও ভালো নজরদারির সুবিধার্থে সীমান্তে একটি টহল ট্র্যাক তৈরি করা হবে।’

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টুইটে আরও বলেছেন, ‘মোট সীমান্তের মধ্যে মণিপুরে ১০ কিলোমিটার সীমান্তে ইতোমধ্যেই বেড়া দেয়া হয়েছে। হাইডেফিনেসন্স সার্ভিল্যান্স সিস্টেম (এইচএসএস) ব্যবহার করে বেড়া তৈরির দুটি পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন।’

এর আগে, গত ২০ জানুয়ারি অমিত শাহ বলেন, ‘মিয়ানমারের সঙ্গে আমাদের সীমান্ত উন্মুক্ত। নরেন্দ্র মোদির সরকার ভারত-মিয়ানমার সীমান্ত সুরক্ষিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সীমান্তের মতো মিয়ানমারের সঙ্গে সম্পূর্ণ সীমানায় আমরা বেড়া নির্মাণ করব।’

মিয়ানমারের সঙ্গে ফ্রি মুভমেন্ট রেজিম চুক্তি বন্ধ করা নিয়েও ভারত সরকার আলোচনা করছে বলে তিনি জানান। অমিত শাহ বলেন, নয়াদিল্লি এখন দুই দেশের মধ্যে সেই অবাধ চলাচলের বিধান বন্ধ করবে।

এসবিএন