ঢাকা ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাত যেন শঙ্কার কারণ না হয়: কাদের

স্বাধীনবাংলা, মোঃ এখলাছ উদ্দিনঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৪৪:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২৩ বার পঠিত

সংগ্রহীত ছবি

সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, মোঃ এখলাছ উদ্দিনঃ

রাজধানী বনানীতে সেতু ভবনে আজ বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাতে আমাদের যেন কোনও শঙ্কা বা উদ্বেগের কারণ না হয়, সেজন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছি। বিশেষ করে চীন ও ভারতের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করছি। বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডাকা হয়েছে। তারা বলেছেন, সংঘাতে যারা পালিয়ে এসেছেন বাংলাদেশে, তাদের ফেরত নেবেন তারা।

মিয়ানমারের চলমান সংঘাতে বাংলাদেশে নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে উদারতা দেখানোর সুযোগ নেই বলে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন আর নতুন করে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ করতে দেবো না। এর আগে উদারতা দেখিয়ে সীমান্ত খুলে দেয়া হয়েছিল। এখন সেই উদারতা দেখানোর সুযোগ নেই। তারা আমাদের জন্য একটা বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক সাহায্য অনেক কমে গেছে। এ বোঝা আমরা আর কতদিন সইবো?

বিএনপি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ ও নির্বাচনে না আসায় বিএনপি এখন চরম হতাশ। সেই হতাশা কাটাতে দলটির নেতারা এখন সরকারবিরোধিতার নামে বিরোধিতাই করবে। এটা তারা সিদ্ধান্ত নিয়েই করেছে। সরকারের কর্মকাণ্ড ইতিবাচক হলেও নেতিবাচক কিছু বলতে হয়, সেরকম উক্তি করছেন।

এর আগে সকালে সেতুভবনে প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠক করে বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেকের  নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

 

এসবিএন

ট্যাগস :

মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাত যেন শঙ্কার কারণ না হয়: কাদের

প্রকাশের সময় : ০৬:৪৪:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, মোঃ এখলাছ উদ্দিনঃ

রাজধানী বনানীতে সেতু ভবনে আজ বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ সংঘাতে আমাদের যেন কোনও শঙ্কা বা উদ্বেগের কারণ না হয়, সেজন্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছি। বিশেষ করে চীন ও ভারতের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করছি। বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে ডাকা হয়েছে। তারা বলেছেন, সংঘাতে যারা পালিয়ে এসেছেন বাংলাদেশে, তাদের ফেরত নেবেন তারা।

মিয়ানমারের চলমান সংঘাতে বাংলাদেশে নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশে উদারতা দেখানোর সুযোগ নেই বলে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন আর নতুন করে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ করতে দেবো না। এর আগে উদারতা দেখিয়ে সীমান্ত খুলে দেয়া হয়েছিল। এখন সেই উদারতা দেখানোর সুযোগ নেই। তারা আমাদের জন্য একটা বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক সাহায্য অনেক কমে গেছে। এ বোঝা আমরা আর কতদিন সইবো?

বিএনপি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ ও নির্বাচনে না আসায় বিএনপি এখন চরম হতাশ। সেই হতাশা কাটাতে দলটির নেতারা এখন সরকারবিরোধিতার নামে বিরোধিতাই করবে। এটা তারা সিদ্ধান্ত নিয়েই করেছে। সরকারের কর্মকাণ্ড ইতিবাচক হলেও নেতিবাচক কিছু বলতে হয়, সেরকম উক্তি করছেন।

এর আগে সকালে সেতুভবনে প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠক করে বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেকের  নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

 

এসবিএন