ঢাকা ১২:০৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

পাকিস্থানে পিটিআই জয়ের দিকে

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৩৯:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২০ বার পঠিত

সংগ্রহীত ছবি

সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ

শুক্রবার( ৯ ফেব্রুয়ারি)  জিও নিউজকে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান গহর আলী খান বলেন, ‘পিএমএল–এন ও পিপিপির সঙ্গে আমরা যোগাযোগ রাখছি না। ’ ১৫০টি আসনে পিটিআই জয় পেতে যাচ্ছে দাবি করে গহর আলী খান বলেন, ‘আমরা (পিটিআই) কেন্দ্রে এবং পাঞ্জাবের প্রাদেশিক পরিষদে সরকার গঠন করব। ’

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে ১৮১টি আসনের অনানুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সমর্থিত স্বতন্ত্ররা সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছেন।

খবর জিও টিভির

জিও টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বতন্ত্রপ্রার্থীরা পেয়েছেন ৭৬টি আসন যার বেশিরভাগই ইমরান খান সমর্থিত। নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন পেয়েছে ৫৪টি। আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী পিপিপি পেয়েছে ৪৩টি আসন। বাকি দলগুলো পেয়েছে মোট ৮টি আসন।

পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদের ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। নির্বাচনের আগে দুর্বৃত্তের গুলিতে এক প্রার্থী নিহত হওয়ায় একটি আসনে ভোট স্থগিত করা হয়েছিল আগেই। তাই গতকাল বৃহস্পতিবার ভোট হয়েছে ২৬৫ আসনে।

কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান–সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরাই এগিয়ে রয়েছেন এমনটাই বলা হয় বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়েছে, কোনো দল এককভাবে সরকার গঠন করতে চাইলে এবার ১৩৪টি আসনে জিততে হবে।

ইমরান খানের দল ১৫০ আসনে জয় পাবে এটা সুনিশ্চিত এমনটাই বলেন (পিটিআই) চেয়ারম্যান গহর আলী খান।

 

এসবিএন

ট্যাগস :

পাকিস্থানে পিটিআই জয়ের দিকে

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৯:৪০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, আন্তর্জাতিক খবরঃ

শুক্রবার( ৯ ফেব্রুয়ারি)  জিও নিউজকে ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান গহর আলী খান বলেন, ‘পিএমএল–এন ও পিপিপির সঙ্গে আমরা যোগাযোগ রাখছি না। ’ ১৫০টি আসনে পিটিআই জয় পেতে যাচ্ছে দাবি করে গহর আলী খান বলেন, ‘আমরা (পিটিআই) কেন্দ্রে এবং পাঞ্জাবের প্রাদেশিক পরিষদে সরকার গঠন করব। ’

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে ১৮১টি আসনের অনানুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এর মধ্যে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সমর্থিত স্বতন্ত্ররা সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছেন।

খবর জিও টিভির

জিও টিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বতন্ত্রপ্রার্থীরা পেয়েছেন ৭৬টি আসন যার বেশিরভাগই ইমরান খান সমর্থিত। নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন পেয়েছে ৫৪টি। আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী পিপিপি পেয়েছে ৪৩টি আসন। বাকি দলগুলো পেয়েছে মোট ৮টি আসন।

পাকিস্তানে জাতীয় পরিষদের ২৬৬ আসনে সরাসরি ভোট হয়। নির্বাচনের আগে দুর্বৃত্তের গুলিতে এক প্রার্থী নিহত হওয়ায় একটি আসনে ভোট স্থগিত করা হয়েছিল আগেই। তাই গতকাল বৃহস্পতিবার ভোট হয়েছে ২৬৫ আসনে।

কারাবন্দী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান–সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরাই এগিয়ে রয়েছেন এমনটাই বলা হয় বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়েছে, কোনো দল এককভাবে সরকার গঠন করতে চাইলে এবার ১৩৪টি আসনে জিততে হবে।

ইমরান খানের দল ১৫০ আসনে জয় পাবে এটা সুনিশ্চিত এমনটাই বলেন (পিটিআই) চেয়ারম্যান গহর আলী খান।

 

এসবিএন