ঢাকা ০১:০১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :

ধূমপায়ীদের জন্য যে পাঁচটি খাবার অত্যান্ত জরুরি

স্বাধীনবাংলা, ডেস্ক নিউজঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৪৪:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩ ১৩১ বার পঠিত

সংগৃহীত ছবি

সংবাদটি শেয়ার করুন :

ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। ধূমপানের অভ্যাস শরীরে অন্দরে যতটুকু ক্ষতি করার, তা করে চলেছে নিঃশব্দে। একান্তই যদি ধূমপানের নেশা ছাড়তে না পারেন, সে ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ হিসাবে সুস্থ থাকতে এই খাবারগুলি খেতে পারেন।

লেবু

কমলালেবু, মোসাম্বি লেবু, বাতাবি লেবু ইত্যাদি লেবু-জাতীয় ফলগুলো প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় থাকা জরুরি। একবার ধূমপান করার ফলে যে পরিমাণ নিকোটিন শরীরে জমা হয়, তা অনেক দিন পর্যন্ত শরীরে থাকে। সেগুলো ত্বকের কোষ, রোমকূপের ক্ষতি করে। তাছাড়া নিয়মিত ধূমপান করার ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কমে যায়। লেবু জাতীয় ফলের মধ্যে থাকে ভিটামিন সি, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ত্বকের কোষের ক্ষতিপূরণেও সাহায্য করে।

আদা

নিকোটিন শরীরে রক্ত সঞ্চালনে ব্যাঘাত ঘটায়। রক্তে নিকোটিনের মাত্রা কম করতে সাহায্য করে আদা। প্রতিদিন কাঁচা আদা খেলে ফুসফুসে নিকোটিন-স্তর পরিষ্কার হয়। ধূমপানের নেশাও কমে।

বেদানা
ধূমপানের ফলে হৃদ্স্পন্দন বাড়ে। রক্তচাপ বেড়ে গিয়ে অক্সিজেনের মাত্রা কমে। বেদানা খেলে রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। রক্ত সঞ্চালনও ভালো হয়।

বাদাম
ধূমপান করার ফলে রক্তনালি সঙ্কুচিত হয়ে যায়। বাদামের মধ্যে থাকা ভিটামিন ‘ই’ রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রেখে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

গাজর
ধূমপানের অভ্যাস শরীরে ভিটামিন ‘এ’ ও সি-এর মাত্রা কমিয়ে দেয়। প্রতিদিন গাজর খেলে ভিটামিন এ, সি, ও কে-র সঠিক মাত্রা বজায় থাকে। সূত্র: আনন্দবাজার।

এসবিএন/এউরি

ট্যাগস :

ধূমপায়ীদের জন্য যে পাঁচটি খাবার অত্যান্ত জরুরি

প্রকাশের সময় : ০৯:৪৪:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩
সংবাদটি শেয়ার করুন :

ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। ধূমপানের অভ্যাস শরীরে অন্দরে যতটুকু ক্ষতি করার, তা করে চলেছে নিঃশব্দে। একান্তই যদি ধূমপানের নেশা ছাড়তে না পারেন, সে ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ হিসাবে সুস্থ থাকতে এই খাবারগুলি খেতে পারেন।

লেবু

কমলালেবু, মোসাম্বি লেবু, বাতাবি লেবু ইত্যাদি লেবু-জাতীয় ফলগুলো প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় থাকা জরুরি। একবার ধূমপান করার ফলে যে পরিমাণ নিকোটিন শরীরে জমা হয়, তা অনেক দিন পর্যন্ত শরীরে থাকে। সেগুলো ত্বকের কোষ, রোমকূপের ক্ষতি করে। তাছাড়া নিয়মিত ধূমপান করার ফলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক কমে যায়। লেবু জাতীয় ফলের মধ্যে থাকে ভিটামিন সি, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ত্বকের কোষের ক্ষতিপূরণেও সাহায্য করে।

আদা

নিকোটিন শরীরে রক্ত সঞ্চালনে ব্যাঘাত ঘটায়। রক্তে নিকোটিনের মাত্রা কম করতে সাহায্য করে আদা। প্রতিদিন কাঁচা আদা খেলে ফুসফুসে নিকোটিন-স্তর পরিষ্কার হয়। ধূমপানের নেশাও কমে।

বেদানা
ধূমপানের ফলে হৃদ্স্পন্দন বাড়ে। রক্তচাপ বেড়ে গিয়ে অক্সিজেনের মাত্রা কমে। বেদানা খেলে রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। রক্ত সঞ্চালনও ভালো হয়।

বাদাম
ধূমপান করার ফলে রক্তনালি সঙ্কুচিত হয়ে যায়। বাদামের মধ্যে থাকা ভিটামিন ‘ই’ রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রেখে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

গাজর
ধূমপানের অভ্যাস শরীরে ভিটামিন ‘এ’ ও সি-এর মাত্রা কমিয়ে দেয়। প্রতিদিন গাজর খেলে ভিটামিন এ, সি, ও কে-র সঠিক মাত্রা বজায় থাকে। সূত্র: আনন্দবাজার।

এসবিএন/এউরি