ঢাকা ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo তিনদিন ধরে চলবে ঘূর্ণিঝড় রেমাল Logo পায়রা-মোংলায় ৭ নম্বর, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর সংকেত Logo এমপি আনার হত্যার রহস্য উদঘাটন,খুনিরা চিহ্নিত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী Logo এমপি হত্যাকান্ডে জড়িত সবাইকে বিচারের মুখোমুখি করা হবে: ডিবি প্রধান Logo ডিসি-ইউএনওদের জন্য কেনা হচ্ছে ২৬১ বিলাসবহুল গাড়ি Logo এডিপি অনুমোদন Logo বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্রের নাসাউ কাউন্টি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম Logo তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি করল আবহাওয়া অফিস Logo গুলিবিদ্ধ হয়ে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে স্লোভাকিয়ার প্রধানমন্ত্রী Logo “স্বাস্থ্যঝুঁকি থেকে রক্ষা পেতে ৮০% এরও বেশি বিড়ি শ্রমিক চান বিকল্প কর্মসংস্থান”

অনেকগুলো ব্যাংকের মধ্যে আলোচনা চলছে- মেজবাউল হক

স্বাধীনবাংলা, অর্থনীতি খবরঃ
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৫১:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪ ২৫ বার পঠিত

একীভূত হতে অনেকগুলো ব্যাংকের মধ্যে আলোচনা চলছে

সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, অর্থনীতি খবরঃ

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক জানিয়েছেন, একীভূত হতে অনেকগুলো ব্যাংকের মধ্যে আলোচনা চলছে। এটি আলোচনা পর্যায়েই রয়েছে, ঘোষণা দেওয়ার পর্যায়ে নেই। সোমবার (৮ এপ্রিল) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

একীভূতকরণ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংক মূলত মধ্যস্থতাকারী জানিয়ে তিনি বলেন, ‘একীভূত হতে আগ্রহী ব্যাংকগুলো কোনো বিষয়ে একমত হতে না পারলে সেখানে মধ্যস্থতা করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ সময় তিনি একীভূতকরণ নীতিমালা নিয়েও কথা বলেন। মেজবাউল হক জানান, একীভূত হওয়ার পর দুর্বল ব্যাংকের কোনো পরিচালক নতুন ব্যাংকের পর্ষদে থাকতে পারবেন না। এছাড়া তিন বছরের আগে দুর্বল ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুতও করা যাবে না।

তিনি বলেন, বেসরকারি সিটি ব্যাংকের সঙ্গে বেসিক ব্যাংকের একীভূত হওয়ার বিষয়ে আলোচনা চলছে। স্বেচ্ছায় কোনো ব্যাংক একীভূত হওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের আপত্তি নেই। মার্চ পর্যন্ত লক্ষ্য অনুযায়ী দুর্বল ব্যাংকগুলো নির্দিষ্ট সূচক অর্জন করতে না পারলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক একীভূতকরণে বাধ্য করবে।

সিটি ও বেসিক ব্যাংকের মার্জার বিষয়ে আলোচনা চলছে জানিয়ে মেজবাউল হক বলেন, এটি হলে বেসরকারি খাতের দ্বিতীয় ব্যাংক হিসেবে একীভূত হবে বেসিক ব্যাংক।

এর আগে বেসরকারি খাতের শরিয়াভিত্তিক এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে নাজুক পদ্মা ব্যাংক একীভূত হওয়ার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

এদিকে ব্যাংক একীভূতকরণ সংক্রান্ত নীতমালা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতিমালার আলোকে দুর্বল (খারাপ অবস্থা) থাকা ব্যাংকগুলো নিজ থেকে একীভূত না হলে বাধ্যতামূলকভাবে একীভূত করা হবে। এর আগে দুই ব্যাংকের মধ্যে সমঝোতা সই করতে হবে। এরপর আমানতকারী, পাওনাদার ও বিনিয়োগকারীর অর্থ ফেরতের পরিকল্পনা জমা দিতে হবে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক বহিঃনিরীক্ষক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ব্যাংকের সার্বিক আর্থিক চিত্র বের করবে। সর্বশেষ আদালতের কাছে একীভূতকরণের আবেদন করতে হবে ব্যাংকে।

এতে কোনো ব্যাংক মূলধন ও তারল্য ঘাটতি, খেলাপি ঋণ, সুশাসনের ঘাটতি এবং আমানতকারীদের জন্য ক্ষতিকর কার্যকলাপের কারণে পিসিএ ফ্রেমওয়ার্কের আওতাভুক্ত হলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পুনরুদ্ধারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিধিনিষেধ মানতে হবে। পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্যর্থ হলে আমানতকারীর স্বার্থে ব্যাংক বাধ্যতামূলক একীভূতকরণ হবে। একীভূতকরণ প্রক্রিয়া শৃঙ্খল এবং সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ার লক্ষ্যে ব্যাংকের অনুসরণের এ নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

এসবিএন

ট্যাগস :

অনেকগুলো ব্যাংকের মধ্যে আলোচনা চলছে- মেজবাউল হক

প্রকাশের সময় : ০৮:৫১:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪
সংবাদটি শেয়ার করুন :

স্বাধীনবাংলা, অর্থনীতি খবরঃ

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক জানিয়েছেন, একীভূত হতে অনেকগুলো ব্যাংকের মধ্যে আলোচনা চলছে। এটি আলোচনা পর্যায়েই রয়েছে, ঘোষণা দেওয়ার পর্যায়ে নেই। সোমবার (৮ এপ্রিল) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

একীভূতকরণ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংক মূলত মধ্যস্থতাকারী জানিয়ে তিনি বলেন, ‘একীভূত হতে আগ্রহী ব্যাংকগুলো কোনো বিষয়ে একমত হতে না পারলে সেখানে মধ্যস্থতা করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ সময় তিনি একীভূতকরণ নীতিমালা নিয়েও কথা বলেন। মেজবাউল হক জানান, একীভূত হওয়ার পর দুর্বল ব্যাংকের কোনো পরিচালক নতুন ব্যাংকের পর্ষদে থাকতে পারবেন না। এছাড়া তিন বছরের আগে দুর্বল ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুতও করা যাবে না।

তিনি বলেন, বেসরকারি সিটি ব্যাংকের সঙ্গে বেসিক ব্যাংকের একীভূত হওয়ার বিষয়ে আলোচনা চলছে। স্বেচ্ছায় কোনো ব্যাংক একীভূত হওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের আপত্তি নেই। মার্চ পর্যন্ত লক্ষ্য অনুযায়ী দুর্বল ব্যাংকগুলো নির্দিষ্ট সূচক অর্জন করতে না পারলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক একীভূতকরণে বাধ্য করবে।

সিটি ও বেসিক ব্যাংকের মার্জার বিষয়ে আলোচনা চলছে জানিয়ে মেজবাউল হক বলেন, এটি হলে বেসরকারি খাতের দ্বিতীয় ব্যাংক হিসেবে একীভূত হবে বেসিক ব্যাংক।

এর আগে বেসরকারি খাতের শরিয়াভিত্তিক এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে নাজুক পদ্মা ব্যাংক একীভূত হওয়ার বিষয়ে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

এদিকে ব্যাংক একীভূতকরণ সংক্রান্ত নীতমালা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতিমালার আলোকে দুর্বল (খারাপ অবস্থা) থাকা ব্যাংকগুলো নিজ থেকে একীভূত না হলে বাধ্যতামূলকভাবে একীভূত করা হবে। এর আগে দুই ব্যাংকের মধ্যে সমঝোতা সই করতে হবে। এরপর আমানতকারী, পাওনাদার ও বিনিয়োগকারীর অর্থ ফেরতের পরিকল্পনা জমা দিতে হবে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক বহিঃনিরীক্ষক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ব্যাংকের সার্বিক আর্থিক চিত্র বের করবে। সর্বশেষ আদালতের কাছে একীভূতকরণের আবেদন করতে হবে ব্যাংকে।

এতে কোনো ব্যাংক মূলধন ও তারল্য ঘাটতি, খেলাপি ঋণ, সুশাসনের ঘাটতি এবং আমানতকারীদের জন্য ক্ষতিকর কার্যকলাপের কারণে পিসিএ ফ্রেমওয়ার্কের আওতাভুক্ত হলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক পুনরুদ্ধারে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিধিনিষেধ মানতে হবে। পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্যর্থ হলে আমানতকারীর স্বার্থে ব্যাংক বাধ্যতামূলক একীভূতকরণ হবে। একীভূতকরণ প্রক্রিয়া শৃঙ্খল এবং সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ার লক্ষ্যে ব্যাংকের অনুসরণের এ নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

এসবিএন